কাব্যগ্রন্থ---হারাবার সময় পরনে ছিল/ ইন্দ্রনীল ঘোষ

এই ডিসেম্বরেই প্রকাশ পেতে চলেছে ইন্দ্রনীল ঘোষের নতুন কবিতার বই "হারাবার সময় পরনে ছিল"। প্রকাশক নিবিড় প্রকাশনী।
বিস্তারিত জানতে +919163449625

ভাস্বতী গোস্বামী-এর কবিতা

চোখ রাখুন টিভির পর্দায়

আইয়াপ্পা

দণ্ডী বেয়ে সিলেবাস উঠছে

গজল খেয়াল তরাণা রুবাইয়ের দুদিক খোলা পথ

দিনদুপুরে জোয়ার আসে

মেঘ জ্বাল দেওয়া দুপুরের কড়াই

ধোঁওয়ার ভাপ পরিযায়ী

আজ নদী বাসবে কেউ

দুহাতে আইয়াপ্পা

হাতের নেশায় পালক পালক শীতগুলো সকাল হলো

মুখ নীচু প্রদীপ

পৃথিবীর সবসময়েই একটা সূর্যোদয় লাগে

দেউলে চন্দ্রাবলী পাখিরা পর্যাপ্ত আলো

জোয়ার এসেছে নদীর মাসে

এসময়ে ভাঙ্গন ছুঁয়ো না কেউ

আইয়াপ্পা ও মোহিনী

তাক্কা তাক্কিট্টা

জুন জুন করে পাখিদের ডানা হলো

আকাশটা জাফরি হয়ে যায়

বৃষ্টিবেলুন

মাটিতে পড়েই ফুঁসে উঠছে আবার…

তাক্কিট্টা তাক্কাদিমি

মা শুয়ে আছে রাস্তার ওপর

বুকে হাত দিয়ে দ্যাখ্ শ্বাস পড়ছে কিনা

অন্তর্বাস কেটে কেটে মন্দিরচূড়ো বানাচ্ছে মিস্তিরি

স্তনের আলোয় পরব আসবে…

তাক্কাদিমি ধিধিথেই

ভরা মাসে জোয়ার এলে তারারাও ডুকরে কাঁদে

কোন নড়াচড়া বোধ করি না আর

ঝিরি ঝিরি বৃষ্টিতে

মা ভিজে গেছে

জুন জুন মেঘ পাখি হয়ে দরজায় দাঁড়ালো…

তেই তেই ধিধিথেই

নূপুরে অশুচি ছিল

তাই টান মেরে খুলে দিয়েছে

জুন এখন পরিষ্কার, শীত এলো ব’লে

দরজা বন্ধ করছ কেন?

নূপুর বাঁধব কোথায়?

ধিধিথেই ধিধিথেই ধিধিথেই

পদ্ম ফুটিয়ে ফুটিয়ে একটা মন্দির বানিয়েছি

স্তনের মুখে দেবতা বসে আছে

এটা তো মোহিনীঅট্টম, না রে?

তালি দিতে দিতে শিশু আইয়াপ্পা হয়ে ওঠে

গোপুরমের কুয়াশায় মোহিনীস্বচ্ছ্তা

শুয়ে থাকা মায়ের কোল নূপুরে কেটে গেছে

(কবিতাদুটির উৎস কেরলের শবরিমালাই মন্দির কেন্দ্র করে দেশজুড়ে যে বিতর্কের ঝড় উঠেছে, তার পরিপ্রেক্ষিতে)

Facebook Comments
Advertisements

1 thought on “ভাস্বতী গোস্বামী-এর কবিতা Leave a comment

Leave a Reply