সব্যসাচী হাজরা-এর কবিতা

লোকটা-১

দঙ্গলভাইরা কোথাও জেগে থাকে শ্মশানের ম্যাপে

আগুনের ভাইহো চলার হুবহু বলো

থাকেনা থাকেনির বিয়েতে আমাদের পোড়ানো হ’লে

লিঙ্গছাই লাগানোভস্ম উপহারে পাবে

দাঁত পর্যন্ত কাটা পড়লো লোকটার হাসি-

লোকটার হারানো মহারাজ

রোজকার ঘন মানুষে আলো ফোটানোর কারসাজি

আমরা মানুষটানা প্রকৃতি দেখে

গাছ লাগাতে পারি

এক শ্রাবণ বাজানো বাজ লোকটার মাথা

জনতার মাথা ওই দিকে গ্যালো

আজ লোকটার ভেতরে শীত

যদিও তার বাইরে পৌষ

যদিও তার বাইরে মাঘ…

লোকটা-২

লোকটার সাথে পাখিও গ্যালোপিং           পাখিডাকাও

আজ দম্পতিরা সারাদিন মোহময় টিলাময়

হিঁ ১

হিঁক ২

হিঁক্কা ৩

৪-পাখি মধ্যমায় নতুন ওড়া পঞ্চমে

লোকটার খালিশহর গুলিয়ে ওঠে ভরাশহরে

গ্রাম ব্রেক ক’রে দেখি আমাদের ডাকে না বৃষ্টির জলপরিষদ

আমাদের খ্যালায় না হাওয়ার গরুবাথান

লোকটার পা পাল্টে পাল্টে জেতে

ধাক্কা    ৩       ২       ১

আলোর বল টানতে টানতে

লোকটার ঘাম

গড়িয়ে যায় পাহাড়ের নিচে…

Facebook Comments

1 thought on “সব্যসাচী হাজরা-এর কবিতা Leave a comment

Leave a Reply