ওয়াসিম আনসারি-এর কবিতা

দু’একটা ভাঙা স্বপ্ন

কত দিন শুনিনি তোমার আওয়াজ

মাটির কাছে কান পাতি

খাঁ খাঁ বাতাস বয়ে যায় ফাটলের মধ্যে দিয়ে

ঘুমের মতো ঘুম নেই আর

দু’একটা স্বপ্ন ভেঙে যায়

তিরতির করে কাঁপে পান্ডুর শরীর

যে বিকেলে জ্বর আসে

সেই বিকেলের গায়ে চিৎ হয়ে শুয়ে আছি

একটা নিঃশ্বাসের গন্ধ ক্রমশ ভেসে আসে

মানুষ স্বপ্নের ভিতরেই মানুষ খোঁজে।

আহত শব্দ

এপথ দিয়েই গেছে বেহুলা ভালায় ভেসে

আটবিক নারী খুঁজে চলেছে শস্যহীন শালগম ক্ষেত

হৃদয়ে তার শূন্যতায় রোগ শরীরে ঘুম পোকা

চমৎকার দুঃখে ডোবানো দু’চোখ

শোক এবং সন্তাপ দেবতার

এ’ভাবেই সরে সরে যাবে ব্যক্তিগত আয়না অথবা জানলার কাছে

একবার পান্ডুলিপির মধ্যে এসে দাঁড়াও স্পর্শহীন শব্দগুলোর কাছে

আমার কৈশোর খেলা আহত চোখগুলোর ভিতর।

তোমাকে রোজ দেখি একা একা

তোমায় প্রায় দেখি বৃষ্টিহীন একা

ছাতা নিয়ে দাঁড়িয়ে আছ

নির্জন নিশ্চুপ দুপুরে

হয়তো বলার কিছু নেই অথবা অপেক্ষা করছো অনেক কিছু বলার

বার বার ফিরে আসছে অনুরণনের কাছে

ছোটোবেলার হেমন্তটুকু একই আছে

যদি আমার হাত ধরো

তোমাকে নিয়ে তোমার শরীরে

বর্তুল আকৃতি অরণ্যে সেখানে একটা গন্ধম গাছের নীচে

প্রজাপতির পাখায় রঙ লাগাচ্ছে ছোট্ট একটা মেয়ে।

Facebook Comments

Leave a Reply