সজল দাস-এর কবিতা

.

ছড় টানতে টানতে টানতে
বেহালা হয়ে উঠল যে বাদক

কোনও এক পাখিজন্মে
এই গাছেই শিস দিয়েছিল সে

আর এ-জন্মে, কাঠ
তার প্রতিশোধ নিচ্ছে

.

দিদিমা
যার জন্য সারারাত
টয়লেটে আলো জ্বেলে রাখা হয়

আমরা সব যে যার মতো ঘুমিয়ে পড়ি
মাঝেমাঝে টের পাই
মাঝরাতে জেগে ওঠা একটা মানুষ
পা ঘষে ঘষে এগিয়ে যাচ্ছে

     আলোর দিকে…

.

অহেতুক যে ছুরি
এতদিন ধার দিয়ে, ঘষে ঘষে কাটলে

জানলে না, একফোঁটা চুনই তা পারতো

দুধ আসলে তখন আমাদের অনুতাপ…

৪.

পায়ে রুমাল জড়িয়ে কেন এলে
জল জল জল জলোচ্ছ্বাস

নীল, তুমি তটরেখার কনে
কাঁদতে গেলে তাই মেঘ করে আসো এখন

যেন পুরনো সাইকেলের দাগ ভালোবাসো
বালি পছন্দ করো

আর 
শিস দিতে দিতে ঝাউবনের 
একটু ভিতরে চলে গেলে

Facebook Comments

Leave a Reply