অরূপরতন ঘোষ-এর কবিতা

প্রজাতান্ত্রিক কবিতা

নববর্ষ

কবিতা লেখার মতই এক আতিথ্যময় সকাল এসেছে আজ
আসবাবপত্র চকচক করছে
আঁটিবাঁধা সহজ শাক, ডাল সিদ্ধ হওয়ার
শব্দও আসছে—

জানালার পাশ দিয়ে জানুয়ারির প্রথম মৃতদেহ যায়
দেখি সবুজ কুয়াশায় লাফিয়ে উঠছে জিরাফ
মৃতের শরীরে;

তোমার গভীর হাত আমাকে স্পর্শ করে
আমি তো চেয়েছি ওইখানে মাত্র দু’খানি কবিতা
লোকচক্ষুর আড়ালে গুঁজে দিতে
এই রক্তাক্ত নতুন বছরে..
সেলাই যন্ত্রে প্লুত হতে হতে

পূর্বাভাস

কী এক বিভ্রাট ঘিরে রেখেছে জেরবার জামা
নায়িকাহীন মেলার সৌন্দর্যে
ঝিরিঝিরি বৃষ্টি পড়ছে
এখন নিঃশব্দে হাঁটো,
দেখে নাও সন্ধের মুখে কীভাবে
শান্ত হতে হতে থেমে গেল
জনহীন নাগরদোলনা
হারাল পকেট ডাইরী, কালো আকাশের নীচে —

সতর্কতা ছিল, তাই রাতের দিকে
দুর্যোগের চিহ্নগুলি মুছে ফেলি
ঘরের ভিতর থেকে..

ঝাড়ু হাতে আমার
শীর্ণ ছায়া ওই দেয়ালে পড়েছে —
এদিকে রকি আইল্যান্ডের প্রিয়াংকাও ফোন করছে
জিজ্ঞেস করছে,
ছ’টা বাইশের শান্তিপুর লোকালে কেন
আমি আজ বাড়িতে ফিরিনি..

Facebook Comments

Leave a Reply