রাহেবুল-এর কবিতা

সাদাটি
 
মোলায়েম সেই সাদাটি বিলি কাটছে । কালচে রক্ত বেজায় ডগমগ ।
কাল তাই পার্টি দেবে ব্যুরো ।
সিদ্ধান্ত করে সুখমুখো । হুলো । হালুম ।
কানাচে কার ছাইরঙ ভাইরাল । ফুটো ঠোঁটে ফুঁমন্তর ।
   
।। দুচ্ছাই ।। সবিশেষ ছাই ।।
   
কূলে কিনারা , এইতক জ্বালানি ।
ট্রেনে কাটা পরি কদ্দুর সন্ধানী ? সেই না জানি মনে ।
 
   
 নাপাকচক্র
  
জংধরা ব্লেড, যেন হালকা ফ্লেভারে ডিওডোরেন্টের ঝাঁঝ …
রাঁধনঘরে আলতোয় আদরে ঠুং ঠাং …
কামিনী ও কাঞ্চনে মাশালামিক্স কীভেবে কীভেবে …
নামকীর্তনে নগর সরগর … ব্যালট উগরায় যায় বিশুদ্ধ বমি ।
বিরক্তের তঞ্চন; থুতুর চুম্বনে নিঃসাড় … পুনরায় লিখিতং মহানভারত
নখ-দর্পণে নখের আঁচড় , আজিকে নিঃশ্চিহ্ন …
   
ফুটেজ খেয়ে ফুড়ুৎডানা মনুষ্যরাজি । পাকচক্রে বাড়ছি ।
   
কবুতরের পায়ে-পাখনায় বেঁধেছি আরক্ত ব্লেড …
   
নাহি গঞ্জি তোমা …
     

তুলোয় যাও
 
খামচে নীলে
 
কত রাত্তির
 
চুলোয় যা
 
মাথা চুলকোয় বে ফিকির চুলকুনি ; রাত্তিরদিন হাতবোমার হট্টমেলা
 
উঁকির ঝুঁকি কী মনে করে আপন ?
 
নীড়ভাবনা
 
রঙ্গিলা নাও

Facebook Comments
Advertisements

1 thought on “রাহেবুল-এর কবিতা Leave a comment

Leave a Reply