আনিস আহমেদ-এর কবিতা

১.

চুলের ওপর রাত ভুলিয়ে দিতে দিতে
একটা গোটা মানুষ ডুবে গেল মাথার ভিতরে
তার ফুঁসে ওঠার আকুতি নিয়ে
চুল ফুঁটছে, চুলের কলিও ফুঁটছে
ফুট মেপে ইঞ্চি মেপে ফুলের গন্ধ ছড়াই তাতে
যে গন্ধের নামধাম ফলিও করতে
উঁচু উঁচু নাক এল সর্বোচ্চ ঘিলুর দেশ থেকে
হাসি ভেঙে কান্না ভেঙে সেখানে একটাই তো মানুষ
বাসি রঙের নীচে জলকাদার ছোটোছুটি
বড় ক’রে তুলি
বড় একটা আঁচড় তুলির
আঁচে সিদ্ধ মানুষ খালি বেয়াড়া চুলের ওড়াওড়ি
সড়গড় করতে পারে যে
তার ডাকনামে নুলোর ঘ্রাণ আসছে
টানটান স্নায়ু আসছে মাথাতে….

 

২.

নামখানাতে বৃষ্টি পড়লে কী যে সুন্দর লাগে
এটা তোমার নাম
এটা আমার নাম
এইভাবে পৃথিবী টুকরো হয়
ছোট ছোট কামরা হয় নামেদের…

সেইসব কামরা জুড়ে শুধু নামের ফিঁসফিঁস
যেন ফাঁকা দরবারে
পাঁখির শিস বুনছে কেউ নাম দিয়ে
নানা রঙের নাম
একটার সঙ্গে আরেকটার গিঁট দিলেই সম্পর্ক হয়ে যাচ্ছে
সেই সম্পর্কগুলো ডাকছে পাখির গলাতে

এটা কল্পমাত্র
আসলে এক কামরা হতে আরেক কামরা যেতে ভয়
পুরো নামতা জুড়েই ভয়


Profile_Pic_Anis_Ahamed

পরিচিতি:  প্রথম দশকে লিখতে আসা কলম। জন্ম ১লা ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৯। লেখার শুরু ক্লাস নাইন থেকে। অলস, মুখচোরা, লাজুক। শখ – দেশলাই কাঠি জমানো।



Facebook Comments
Advertisements

1 thought on “আনিস আহমেদ-এর কবিতা Leave a comment

  1. এরচেয়ে বেশি ভালোলাগার লেখা পড়েছি তোমার, অন্যত্র। আপাতত বই এর অপেক্ষায় তোমার।

Leave a Reply