সুকান্ত দাস-র কবিতা

fail

ম্যানিকুইন

১.

সকাল থেকে বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টি ঝরাচ্ছে জমকালো প্রেমিক। কখনও ঘোর হচ্ছে। চোখের ভেতর দৃশ্যমানতার রূপ। রং। অন্য চোখের পৃথিবী। ডাহুক সাড়া দিয়ে গেল। অবেলার স্নানে নরম করে মেলছে পাখনা। তাতে ডুব সাঁতারের সৌখিনতা। বাঁশবনে কেউ দেখিয়ে দিয়েছে রিহার্সালের নোটস। ব্যালের কৌশল। গাছেরা মেলে দিচ্ছে শিকড়ের ফাঁস

২.

আমি যে চোখে তোমায় দেখি তাতে বসন্তের দাগ ছিল। নিভে যাওয়া ছিল একান্ত শখ। আবারও বাড়ির ভুল পথ ধরি। দরজার হাতল ধরে বুঝি এবারও ভুল হয়ে গেছে।

৩.

এই তো সারেঙ্গী। ভুলের বাজনা থেকে করবীর দাগ। মোহের অসীম আঁচল। এই দেহে ভিড় করব। পৃথিবীর বিশল্যকরণীর চুপ করে থাকা গুলো শেষ হতেই রাস্তায় কেউ ডিজে চালিয়ে যায়। ঘুম ভাঙল। এ কি তবে মৃত্যু লেখা? বারবার ভুলের গ্রাফ? নাকি যুদ্ধ জয়ের পর মায়ের হাতের রান্নার স্বাদ?

৪.

কথা ছিল দেখা হবে। তার গেটের ওপাশে দাঁড়িয়ে থাকব গামা মোহন্তের কাঁচাগোল্লা নিয়ে। সেলিব্রেশনে অনেকটা আলো এসে পড়বে। আর কোন উপশম লাগবেনা। বন্ধ হয়ে যাবে প্যারাসিট্যামলের সব কারখানা। জাদু দ্যোতনায় তুমি ইতিকথা বলবে।
ঘাসের উপর শুয়ে দেখব নাম ধরে ডাকা তারাদের

Facebook Comments

Leave a Reply