ইন্দ্রাণী সরকার-এর কবিতা

fail

আচ্ছাদন

গায়েতে জড়িয়ে গেছে উলের মত মায়া
চাদরের মত ভালোবাসা সান্ত্বনায় ঢেকে রাখে,
কোনোদিনো তাকে পাবেনা জেনেও।
মুখের কথা আর সরে না
আঘাত পেয়ে পেয়ে ভয়ে শুধু জড়োসড়ো।
কোনোদিন ধানসিঁড়ি নদীতে হয়তঃ চিল উড়েছিল
এখনো তার কান্নার রেশ বাতাসে জড়িয়ে আছে।
রাখালিয়া সুর দূরের মাঠ থেকে ভেসে আসে
সে দূর নদীর দিকে চেয়ে চেয়ে অঝোরে কাঁদে,
গলার স্বর যেন বন্ধ হয়ে আসে।
তবুও একদিন সে শিখে নেবে সহজ পাঠ
কোনো শান্ত বয়ে যাওয়া একটি ঝর্ণার পাশে বসে
হয়তঃ বা কোনো পাখির ডাকে ডাক মিলিয়ে।
ততদিন পুরোনো স্মৃতিগুলো আগলে ধরে রাখা।

নিরুপায় চোখেরা

শনিচরের মত বসে থাকে শেঠানি
বানভাসি শীৎকারে ছবির পাতা রঙিন হয় ।
মতলবগুলো ভাঁজ করতে করতে পেটে চড়া পরে গেল ।
এখন চোখের সামনে বসে বসে দেখে
নতুন প্রজাপতিদের যাওয়া আসা নিরুপায় চোখে ।
তবু ফুল ফোটে পাখি ডাকে আকাশ রঙিন হয়
তার অগ্নিবর্ণ চোখের সামনে নতুন প্রাসাদ গড়ে ওঠে ।

পাখিপালক

পাখিপালকদের সব পাখি উড়ে গেছে,
বন্ধনে তারা থাকতে অপারগ ।
প্রত্নতাত্ত্বিকরা মাটি খুঁড়ে বের করছে ইতিহাসের নজির

আলাদিন আলপথ ধরে ম্যাজিকের মত মিলিয়ে যাচ্ছে
জেসমিন বিমানে যাতায়াত করে রোমিওর সাথে ।

শীঘ্রই আমরা সব কিছু পরিমার্জিত করে একটি নতুন
সভ্যতা সৃষ্টি করে যাব শুধু কবিতার হাত ধরে ।

Facebook Comments

Posted in: August 2020, POETRY

Tagged as: , ,

Leave a Reply