যুগলবন্দী :: অরিত্র সান্যাল ও মৌমিতা ভট্টাচার্য

fail

[শুধু শারীরিক নয়, এই মানসিক দূরত্বের সময় আমরা চেয়েছিলাম শিল্পীরা কাছাকাছি আসুক। তাই এই উদ্যোগ – যুগলবন্দী। আলাদা আলাদা মাধ্যমে কাজ করা শিল্পীরা একজোট হয়েছেন। সৃষ্টি হয়েছে কবিতা থেকে ছবি বা ছবি থেকে কবিতা। এ’ভাবেই এ’ আয়োজনে কবি অরিত্র সান্যাল ও শিল্পী মৌমিতা ভট্টাচার্য।]


কবি পরিচিতি

অরিত্র সান্যাল

কবি, অনুবাদক। প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ পাঁচটি।

রঙ খসে পড়ছে

অরিত্র সান্যাল

১.

তোমাকে দেখতে পুরোনো জনপদের মতো,
অলস রেখায় আঁকা।
আমি তোমার মধ্যে রত আছি।
আর একটি ক্ষীণতা ঘনিয়ে এল।
তুমি শব্দ-রঙা পোশাক খুলে রেখেছ?
রাত্রে দেখতে-পাওয়া পথসংকেতগুলি ঘুমে পিছিয়ে যাচ্ছে।
দপদপ করছে হলুদ আলো, সবুজ
হাত দিলে শিউরে বেড়ে যাচ্ছে অন্ধকার
তুমি যদি উঠে দাঁড়াও
আমি তোমার মতোই পুরোনো কিছু বলতে পারি-
বললাম- উঠে দাঁড়াল নৈঃশব্দ

শ্যাওলাধরা স্থাপত্য
ভেঙে পড়া অতিকায় বাড়ি, ছায়াময় রাস্তা
একটি জায়গা আছে –
যে-ই বিশ্রাম নেয় সেখানে, সে-ই আমি


২.

হঠাৎ ছিটকে গিয়ে
-যেন এতক্ষণ একটা ভুল ছিল মনে-
ভাঙল
        জানালা
    ভাঙল
দৃশ্য
কাক ভেঙে খান খান

এর পরের দৃশ্য তৈরি করতে এসেছে নীলরঙ ও নীরবতা,
খুব পুরোনো স্মৃতি থেকে হুহু সুপেয় জল।
তখন আমি তুমি ঘরের ভিতরটিকে জন্ম দিচ্ছিলাম।
আমাদের ভিতর একটি দুরারোগ্য পাথর চঞ্চল হয়ে উঠছিল
যে-ই তুমি হুশ টেনে নিলে হাওয়া থেকে –

যে রঙ শব্দের
শব্দ, আর একটা কাক
সটান খুলে গেল
তোমায় প্রথম দেখায়

৩.

তুমি যা বাদামী রঙে আঁকো – তাতে বড় উত্তেজনা হয়।
যা কিছু নীল রেখা – মানুষ তার পাশেই বসত করল।
সবকিছু শুরু হল এই ছবি থেকেই।
শরীরের রং – তুমি বারণ মানোনি –
গাঢ় হলুদ করে দিলে–

এত উজ্জ্বলতার আড়ালে
রক্ত মানায়?

বিশ্বাস শেখাতে তুমি ব্যবহার করেছ কাটাকুটি

৪.

ধরা যাক, একজনের শরীরে অন্য একজনের উঁকি লেগে আছে।
ধরা যাক, একটা ক্যানভাস থেকে চাপা শোরগোল উঠে আসছে।
যা কিছুর মানে আছে, এবং যা কিছুর নেই –
সেই সবকিছু ফেলে সাদা এক পৃথিবী শুরু হচ্ছে এখান থেকে –
আমি ঘরের মধ্যে যে নৈঃশব্দ হয়ে আছি তা ফুটিয়ে তুলতে
কতকিছু থেকে বিরত থাকতে হয়

কত অপচয় কত অবিশ্বাস নিয়ে
একজন নিথর দাঁড়িয়ে থাকেন ক্যানভাসের সামনে

আপাতত তাদের মধ্যে
একটি রেডিও ভাঙা-ভাঙা শব্দ করে উঠছে

শিল্পী পরিচিতি

মৌমিতা ভট্টাচার্য

শিল্পী। জন্ম কোলকাতায়, দীর্ঘকাল থেকে দিল্লীর বাসিন্দা। প্রচুর গ্রন্থ ও পত্রিকায় ইলাস্ট্রেশন করেছেন। নিজের শিল্পকর্ম নিয়ে একাধিকবার চিত্রপ্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছেন।

বড় ক’রে দেখার জন্য ছবিটিতে ক্লিক করুন

Facebook Comments

Leave a Reply