যুগলবন্দী :: সব্যসাচী হাজরা ও অভিজিৎ মাইতি

fail

[শুধু শারীরিক নয়, এই মানসিক দূরত্বের সময় আমরা চেয়েছিলাম শিল্পীরা কাছাকাছি আসুক। তাই এই উদ্যোগ – যুগলবন্দী। আলাদা আলাদা মাধ্যমে কাজ করা শিল্পীরা একজোট হয়েছেন। সৃষ্টি হয়েছে কবিতা থেকে ছবি বা ছবি থেকে কবিতা। এ’ভাবেই এ’ আয়োজনে কবি সব্যসাচী হাজরা ও শিল্পী অভিজিৎ মাইতি।]


কবি পরিচিতি

সব্যসাচী হাজরা

শূন্য দশক, প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ- ‘তৃতীয় ফ্লাওয়ার শো’, ‘ওভ্যানোর ওভেনে’, ‘পসিবিলিটি ও টিলিবিসিপ’, ‘উটবিকার’-(প্রথম ও দ্বিতীয় প্রকাশ), ‘৯ আঁকা ০’, ‘আনুপাহাড়ের জলছবি’, ‘ঝরাপাখিদের চেকমেট’, ‘নির্বাচিত শূন্য’ , f(x) নামের লোকটা।

ধর্ষক ভাবছে

সব্যসাচী হাজরা

সপ্রাণে দেখেছি প্রাণ নামক প্রাণীর দুধেল দাঁতপুকুর
মিথ্যেদা’র জনগণ       লাভাজাতীয় মানুষ গলাভাঙা
নে নে রণে হরণে শিহরণে মাথাগ্রহে মানুষ অতিথি
মিথ্যেদা’র আলোবিল, আলোকৃত, আলোস্থলী, আলোশয়
বিকল হচ্ছে একটু একটু ক’রে
আমি ট্রমাতম
আপনার এই ছুট ভালো লাগে?
তাহলে বেটাট্রনে খেলা করুক আপনার মেয়ে
হাজার গুণ স্তনযন্ত্র
লিঙ্গরশ্মির ঝলক
বিজ্ঞান মেলায় হারিয়ে যাওয়া হাত
ধর্ষক ভাবছে এই হাতেই অ্যান্টিম্যাটার ছুঁয়ে ছুঁয়ে
দেখি
মিথ্যেদা আজ খোলস ছেড়ে
                          বিদ্যালয়ের মাঠে…


শিল্পী পরিচিতি

অভিজিৎ মাইতি

জন্মস্থান – বরগোদা, পূর্ব মেদিনীপুর।
পেশায় – অ্যানিমেশন শিল্পী।
শিল্প ভাবনা :
জানিনা আদপে ও শিল্পী হয়ে উঠতে পেরেছি কিনা তবে রং এর প্রতি আকর্ষণ শৈশব থেকেই। পাঁচ বছর বয়সে আমার রং তুলির সাথে পরিচয় আর মাটির পুতুল বানানো। আমার মায়ের হাতেই শিক্ষা শুরু। সারাক্ষণ চলত ভাঙা গড়ার কাজ। যখন আমি পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র তখন এক গৃহশিক্ষকের সহযোগিতায় আমার এই শিল্পচর্চা ধীরে ধীরে এগোতে থাকলো, পড়াশোনার প্রতি উৎসাহ তেমন ছিল না । নানা প্রতিকূলতার মধ্যেও এই শিল্পচর্চা চলতে থাকে। কিছু গুনীমানুষ ও শিক্ষকের সান্নিধ্য লাভের সুযোগ হলো। যেহেতু শৈশব থেকেই গ্রামেই বড়ো হয়ে ওঠা তাই গ্রামবাংলার সুন্দর রূপ আমার ছবির একটি প্রিয় বিষয়। পুরুষশাসিত সমাজে আমরা বাস করি তাই নারীদের প্রতি প্রতিনিয়ত যে অবহেলা, অত্যাচার আর বঞ্চনা সেটা আমার শৈশব থেকেই দেখা এবং প্রতিবাদ ও করি। আমার মনের কোথাও একটা ক্ষোভ তৈরি হয়। এই নারী নির্যাতনের এই ভয়াবহ রূপ আমার ছবিতে প্রতিফলিত হতে থাকে । এই ভাবনার অনুপ্রেরণা হলো শ্রদ্ধেয় কবি ‘শঙ্খ ঘোষ’ এর একটি বিখ্যাত কবিতা “যমুনাবতী”। এই শিল্পজগতে আমি একটি সদ্যজাত শিশু , হামাগুড়ি দিয়ে উঠে দাঁড়িতে হবে তারপর দীর্ঘ পথচলা।

বড় ক’রে দেখার জন্য ছবিটিতে ক্লিক করুন

Facebook Comments

Leave a Reply