যুগলবন্দী :: শৌভিক দে সরকার ও শ্রেয়সী গঙ্গোপাধ্যায়

fail

[শুধু শারীরিক নয়, এই মানসিক দূরত্বের সময় আমরা চেয়েছিলাম শিল্পীরা কাছাকাছি আসুক। তাই এই উদ্যোগ – যুগলবন্দী। আলাদা আলাদা মাধ্যমে কাজ করা শিল্পীরা একজোট হয়েছেন। সৃষ্টি হয়েছে কবিতা থেকে ছবি বা ছবি থেকে কবিতা। এ’ভাবেই এ’ আয়োজনে কবি শৌভিক দে সরকার ও শিল্পী শ্রেয়সী গঙ্গোপাধ্যায়।]


কবি পরিচিতি

শৌভিক দে সরকার

নব্বইয়ের দশকের কবি ও অনুবাদক। জন্ম ১৯৭৬ সালে পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ারে। ‘একটি মৃদু লাল রেখা’, ‘যাত্রাবাড়ি’, ‘দখলসূত্র’, ‘অনুগত বাফার’ উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ। অনুবাদ করেছেন রোবের্তো বোলানিওর কবিতা, খুলিও কোর্তাসারের কবিতা, রুদ্রমূর্তি চেরানের কবিতা, মার্টিন এস্পাদার কবিতা, নামদেও ধাসালের কবিতা, সদত হসন মণ্টোর ‘স্যাম চাচাকে লেখা চিঠি’, ফেদেরিকো গারসিয়া লোরকার নাটক ‘বেরনার্দা আলবার বাড়ি’ ইত্যাদি।  

ছায়া জোত

শৌভিক দে সরকার

১.
ছায়ার কালোর নীচে ঢুকে পড়ছে অন্য একটা ছায়া। একটা ছায়ার গাঁট আর সেই গাঁট পেরিয়ে অন্য কারও হাড়গোড়।

২.
একটা কুকুরের দাঁত থেকে ঝুলতে থাকা রক্তহীন কালো প্লাস্টিক যেভাবে ছিনিয়ে নেয় অন্য একটা কুকুর, ঠিক সেভাবে আমার আঙুল থেকে ছায়ার মাংসকুচি খুবলে নিচ্ছে কেউ।

৩.
চোখের ছায়া পুড়তে পুড়তে সামান্য ছাই হয়ে যাওয়া একটা জীবনের পরত লেগে থাকে জিভের ওপর। আশংকায় ছোট হতে হতে কুঁকড়ে যায় জিভ।

৪.
চামড়ার বোধগম্য ছায়া সেঁটে যাচ্ছে কারও জামার ওপর। সন্ধ্যার শেষদিক! কালি হয়ে যাওয়া হাড়মাসের ওপর ছায়া জড়িয়ে অন্ধকার চরতে বেরিয়ে পড়ল কেউ।


শিল্পী পরিচিতি

শ্রেয়সী গঙ্গোপাধ্যায়

জন্ম ২১/০২/১৯৮৬। বড় হওয়া জলপাইগুড়িতে। বর্তমানে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভূগোল ও ফলিত ভূগোল বিভাগে গবেষণারতা। প্রসন্নদেব মহিলা বিদ্যালয়ে ভূগোল পড়ান। ছোট থেকেই ছবি ও লেখার সঙ্গে যুক্ত। প্রথম আঁকার প্রদর্শনী আর্ট গ্যালারী, জলপাইগুড়ি, ২০০৭। পরবর্তীতে প্রদর্শনী হয়েছে সুভাষ মঞ্চ, উত্তরের ক্যানভাস, রূপশ্রী কমপ্লেক্স, CDHI & NLCP, বইমেলা জলপাইগুড়ি, উত্তরবঙ্গ উৎসব, রামকিংকর বেইজ প্রদর্শনী কক্ষ শিলিগুড়ি, নর্থ গ্যালারী, আকাদেমী অব ফাইন আর্টস, নন্দলাল বসু আর্ট গ্যালারী আই সি সি আর, কেমল্ড আর্ট গ্যালারী, গ্যালারী গোল্ড। ২০১৫ সালে একক প্রদর্শনী হয় ওয়েস্ট গ্যালারী আকাদেমী অব ফাইন আর্টস, কলকাতা ইত্যাদি।   
ছবি আঁকার পাশাপাশি শ্রেয়সী কবিতা, গদ্য লেখেন।

বড় ক’রে দেখার জন্য ছবিটিতে ক্লিক করুন

Facebook Comments

Leave a Reply