অনিকেশ দাশগুপ্ত-র কবিতা

fail

ধ্বংস

একটা মস্ত বড় হাঁ জেগে আছে কোথাও
আলো-অন্ধকারের ও’পারে , স্ব-হননে

আর এই কথাগুলি যখন বলছি
বড় বেশি বিক্ষিপ্ত হ’তে -হ’তে তুমি আবারও স্পষ্ট ও মুখোমুখি
মেঘ -পাহাড়তলী-লাথির মতো বৃক্ষ

নগ্নতা, যেন এ-ফোঁড় ও-ফোঁড় ক’রে
বিরাট পেন্ডুলামে ঝুলিয়ে রেখেছে ক্রমাগত
একটা নীলাভতা ,নাগাল , সবুজের দহন

চার দিগন্ত একসাথে ফেঁপে উঠে ঢেকে ফেলছে
জলতলের যত ছায়া ও ছবি তখন

স্রোত

যুদ্ধের অংশীদার হওয়া ছাড়া আমাদের একটা গাঢ় কমলা সন্ধ্যে ছিল
বিষন্ন দাঁতে চেপে ধরতাম ছুটকো-ছাটকা পালক ও প্রসাধন,
কালো ত্রিপল টাঙানো দূরতম বস্তির কলস্বর ভেসে আসত
আমাদের নিবিড় দুয়ারে, একমনের রৌদ্র পড়ে থাকতে -থাকতে;
আর এই জলচর গ্রীবা, তার সঙ্গীহীন নিভৃতে –
সৌখিন কাচের মতো বর্ণচ্ছটায় এক্ষুণি ভরিয়ে দিত যেন
তামাম লুকোচুরি,হাপিত্যেশ চাঁদের সপ্তম সুরখানি একটানা বেজে গেলে
আমাদের কৌতূহলী চোখ দেখে ফেলত দিগন্তে, ধোঁয়ার অদ্ভুত স্ফীতি

Facebook Comments

Leave a Reply