রাজর্ষি মজুমদার-এর কবিতা

fail

শাকম্ভরী

তোমার প্রতাপ প্রবল – চারিধারে মরার বসতি তুমি পায়ে হেঁটে শস্যবীজ ছড়িয়ে দাও মৃত নদীর চরে শস্য ফলে ওঠে, তোমার কৃপায় তাতে হিল্লোল ওঠে বাতাসের।

তুমি নবপত্রিকা, গৌরী বিল্বমূলে অধিষ্ঠান কর – তোমার সন্তান আমি সারাদিন খুঁটে খুঁটে যতটুকু ফসল পড়ে থাকে কবুতর ও ইঁদুরের খাবারের পর – নিয়ে ফিরে আসি সেই তোমার নিকটে – ঝাঁপি খুলে সে ভিক্ষা তোমাকেই অর্পণ করি, ধানসেদ্ধ হয় – ধরায় তোমার সুবাস ফুটে ওঠে।

ঘুম

খর রৌদ্রের ভিতর তোমার করুণা জাগে,
শালবনের দিকে গেলে তোমার অস্তিত্ব টের পাই
নাথ, এ চঞ্চলতা থেকে আমায় উদ্ধার কর –
বনজ অন্ধকারে ডুবিয়ে রেখে দাও আমাদের চেতনাটুকু।

যদি ঘুম ভেঙে, ঘোর কাটে ওষুধের তবু যেন মনে হয় এই জানালার পরে তোমার আস্তানা আর দেয়ালের পারে মহাপৃথিবী- যেন নিজেকে তৈরী করে ফেলি সে অনন্ত যাত্রায়।

ততদিন এভাবেই গান আসুক, ভেলা পেলে পার করে নিও।

Facebook Comments

Leave a Reply